By: Daily Janakantha

যমুনার তীব্র ভাঙ্গনে দিশাহারা মানুষ

দেশের খবর

24 Jun 2022
24 Jun 2022

Daily Janakantha

নিজস্ব সংবাদদাতা, শাহজাদপুর, সিরাজগঞ্জ ॥ যমুনায় পানি বৃদ্ধি ও উজানের ঢলে শাহজাদপুর উপজেলার জালালপুর ইউনিয়নে নদীভাঙ্গন শুরু হয়েছে। গত এক সপ্তাহে ইউনিয়নের ভেকা, ঘাটাবাড়ি, জালালপুর ও পাকুরতলা গ্রামের আশ্রয়ণ প্রকল্পের ৩০টি ঘরসহ এই চার গ্রামে অন্তত সাড়ে ৪শ’ বাড়ি যমুনায় বিলীন হয়ে গেছে। ভাঙ্গনঝুঁকিতে রয়েছে এলাকার পাকুরতলা (আশ্রয়ণ) প্রাথমিক বিদ্যালয় ও মসজিদসহ বিভিন্ন স্থাপনা। অপরদিকে গালা ইউনিয়নের মার্জান ফকিরপাড়া গ্রামের টেক্কার ৩টি ঘরসহ পুরো বসতভিটা গভীর রাতে হঠাৎ করেই যমুনা নদীতে ধসে যায়। সরেজমিনে গিয়ে ওই এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, ওইসব পরিবার আশ্রয়স্থল হারিয়ে নিঃস্ব ও অসহায় হয়ে গরু-ছাগল এবং শিশুদের নিয়ে কেউ খোলা আকাশের নিচে, কেউ অন্যের বাড়িতে এবং বাঁধের উপরে আশ্রয় নিয়ে খেয়ে না খেয়ে জীবনযাপন করছে। এ পর্যন্ত কোন সরকারী-বেসরকারী সাহায্য সহযোগিতা পৌঁছায়নি বলে জানান ভাঙ্গনকবলিত মানুষ। এ বিষয়ে জালালপুর গ্রামের ভাঙ্গনকবলিত রহম মোল্লা, রজব আলী, বাবু মিয়ার সঙ্গে কথা হলে তারা বলেন, গত তিন দিন হলো আমাদের বাড়িঘর নদীর মধ্যে চলে গেছে। নদীর ধারেই অন্যের বাড়িতে আশ্রয় নিয়ে স্ত্রী সন্তানদের নিয়ে কোনরকমে দিন কাটাচ্ছি। কোন নেতা বা চেয়ারম্যান মেম্বার কেউ কোন সাহায্য সহযোগিতা করেনি। গত এক সপ্তাহে আমাদের এই জালালপুর আর পাকুরতলা গ্রামের প্রায় ৩/৪ বাড়ি নদীতে গেছে। সকলেই খুব কষ্টে আছি। ইউপি সদস্য মহির উদ্দিন বলেন, গত বৃহস্পতিবার রাতে ঝড়-বৃষ্টির সময় নদীতে প্রচ- ঢেউ শুরু হয়। এতে মুহূর্তে ২৫টি বাড়ি বিলীন হয়ে যায়। জীবন নিয়ে সবাই ঘর থেকে বের হতে পারলেও অনেকেই জিনিসপত্র রক্ষা করতে পারেননি। চোখের সামনে যমুনা নদীতে তলিয়ে গেছে। তখন থেকে তারা খোলা আকাশের নিচে বাস করছেন। বাড়িঘর হারিয়ে দিশাহারা এসব মানুষ এখন জনপ্রতিনিধিদের কাছে সাহায্য সহযোগিতা চাইছে।

কর্ণফুলীর ভাঙ্গনে গৃহহীন শতাধিক পরিবার
নিজস্ব সংবাদদাতা রাঙ্গুনিয়া, চট্টগ্রাম থেকে জানান, কয়েক দিনের অবিরাম বর্ষণে কর্ণফুলী নদীর স্রোত ও পাহাড়ী ঢলে নদীভাঙ্গনে গৃহহীন হয়ে পড়েছেন নদী তীরবর্তী শতাধকি পরিবার। এছাড়া নদীর পানি বেড়ে যাওয়ায় নতুন নতুন এলাকায় ভাঙ্গন শুরু হয়েছে। তলিয়ে গেছে শত শত একর আবাদি জমি। উপজেলার রাইখালী, কোদালা বাজার, শিলকের ডংখাল, ব্যূহচক্র বাজার, ফকিরা ঘাট, সরফভাটর মরাখালের মুখ, কানুরখীল, ভূমিরখীল, মৌলানা গ্রাম, পাইট্টালীরমুখ, চন্দ্রঘোনার মিশন ঘাট, দোভাষী বাজার, আমতলী, শ্যামাপাড়া, ফকিরপাড়া, খন্দকারপাড়া, মিনারপাড়া, কদমতলী, মরিয়ম নগরের কাটাখালী, মরম পাড়া, ফরাশ পাড়া, কুমার পাড়া, রশিদিয়া পাড়া, ইছামতি, ইছাখালী ও গোচরাবাজার সবচেয়ে বেশি ভাঙ্গনকবলিত । বেতাগী চিড়িঙ্গার মুখ এলাকার জাহেদুল আলম বলেন, ‘যে নদীর পাড় আমাদের নীরবতার কারণ ছিল, সেই নদীর পাড় এখন আমাদের নিঃস্ব করতে বসেছে। আমরা অনেক কষ্টে আছি, চেয়ারম্যান দেখে গেছেন, তার কাছে আমাদের সবার একটাই দাবি, নদীর পাড়ে যেন ব্লক বসানোর জন্য রাঙ্গুনিয়ার এমপি তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপিকে অবগত করা হয়। যাতে অতি দ্রুত ব্লক বসানোর কাজ শুরু করে আমাদের নদীভাঙ্গনের কবল থেকে শত শত বসতভিটা রক্ষা করেন।’
বেতাগীর চিরিয়ার মুখ এলাকার নুরুন্নবী বলেন, হঠাৎ ভাঙ্গন শুরু হওয়ায় কয়েকটি বাড়ি সরিয়ে নেয়া হয়। স্থানীয়রা ভাঙ্গনরোধে স্বেচ্ছাশ্রমের মাধ্যমে নদীতে প্লাস্টিকের বস্তা ফেলেছে। প্রাথমিকভাবে জিও ব্যাগ ফেলে ভাঙ্গনরোধ করলে নদীপাড়ের শতাধিক পরিবার নদীভাঙ্গনের কবল থেকে রক্ষা পাবে।’ এ বিষয়ে বেতাগী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শফিউল আলম শফি বলেন, ‘নদীভাঙ্গন প্রতিরোধে কাজ করে যাচ্ছি।

ঈশ্বরদীতে ভাঙ্গন আতঙ্ক
স্টাফ রিপোর্টার ঈশ্বরদী থেকে জানান, পানি বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে সাঁড়া ইউনিয়নে পদ্মা নদীর তীরবর্তী কয়েকটি গ্রামের মানুষের মধ্যে ভাঙ্গন আতঙ্ক শুরু হয়েছে। স্বাধীনতার পর থেকে প্রায় এক হাজার পরিবার, মসজিদ, মন্দির, খেলার মাঠ, আবাদি জমিসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান বিলীন হয়ে গেছে। শত শত পরিবার এলাকা ছেড়ে অন্যত্র চলে গিয়ে নতুন করে বসতি গড়ে তুলেছে। পাল পাড়ার অনেক পরিবার পৈত্রিক পেশা ছাড়তে বাধ্য হয়েছে। সঙ্কুচিত হয়েছে এলাকার ঐতিহ্যবাহী গরুর গাড়ির চাকা তৈরি শিল্পের। এবারের নদীভাঙ্গনের ফলে সাঁড়ার নদীর তীর সংরক্ষণ বাঁধ ও লালনশাহ সেতু সংরক্ষণ বাঁধ হুমকির মুখে পড়েছে। নদীপাড়ের বসতিদের আশঙ্কা পানির তীব্রতা বৃদ্ধি হলে বাঁধটি যে কোন সময় ধসে পড়তে পাড়ে।

The Daily Janakantha website developed by BIKIRAN.COM

Source: জনকন্ঠ

সম্পর্কিত সংবাদ
নুপুর শর্মার বিতর্কিত মন্তব্য প্রথম সামনে এনেছিলেন সাংবাদিক জুবের

ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপি থেকে বরখাস্ত হওয়া নেত্রী নুপুর শর্মা যে টেলিভিশন অনুষ্ঠানে ইসলামের নবী মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে Read more

স্ত্রী-সন্তান নিয়ে হেলিকপ্টারে পদ্মা সেতু দেখলেন অনন্ত জলিল

কাঙ্ক্ষিত পদ্মা সেতু উদ্বোধনের পর থেকেই উৎসুক জনতা ভিড় জমিয়েছেন। এই স্বপ্নের সেতুর বাস্তবায়ন হওয়ায় সাধারণ মানুষের মতো দেশের তারকারাও Read more

নড়াইলের কলেজ শিক্ষক স্বপন বিশ্বাসকে পুলিশের উপস্থিতিতে জুতার মালা পরানোর ঘটনা কীভাবে ঘটল?

বাংলাদেশের নড়াইলে কলেজ শিক্ষক স্বপন কুমার বিশ্বাসের গলায় জুতার মালা পরানোর ঘটনা নিয়ে ব্যাপক সমালোচনার মুখে বেশ কয়েকদিন পর মামলা Read more

ছেলের প্রেমের বলি হলেন মা

ময়মনসিংহে সিরাজুল ইসলাম নামে এক যুবক প্রেম করে প্রতিবেশী এক কিশোরীকে নিয়ে পালিয়ে যায়।

ডেমরার বাসায় স্বামী-স্ত্রীর মরদেহ

রাজধানীর ডেমরার একটি বাসা থেকে লিয়াকত আলী (৫০) ও স্ত্রী সীমা আক্তারের (৪০) মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তবে মঙ্গলবার (২৮ Read more

বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবি: এ বছরেই বিচার সম্পন্নের আশা

২০২০ সালে ২৯ জুন বুড়িগঙ্গায় ময়ূর-২ লঞ্চের ধাক্কায় ডুবে যায় মর্নিং বার্ড নামের একটি লঞ্চ। এতে মর্নিং বার্ডের ৩৪ যাত্রী Read more

আমরা নিরপেক্ষ নই ,    জনতার পক্ষে - অন্যায়ের বিপক্ষে ।    গণমাধ্যমের এ সংগ্রামে -    প্রকাশ্যে বলি ও লিখি ।   

NewsClub.in আমাদের ভারতীয় সহযোগী মাধ্যমটি দেখুন