By: Daily Janakantha

চিংড়ি ঘেরে আউট ড্রেন না থাকায় বেড়িবাঁধ ও রাস্তা ধসে যাচ্ছে

দেশের খবর

17 Jun 2022
17 Jun 2022

Daily Janakantha

স্টাফ রিপোর্টার, সাতক্ষীরা ॥ সাতক্ষীরাসহ উপকূলীয় এলাকায় চিংড়ি ও মাছ চাষের জন্য তৈরি করা ঘেরগুলোতে আউট ড্রেন ব্যবস্থা না থাকায় উপকূলীয় এলাকার বেড়িবাঁধ ও গ্রামীণ রাস্তাগুলো ধ্বংস হচ্ছে। আউট ড্রেন না রেখে গ্রামীণ রাস্তাকে ঘেরের বেড়িবাঁধ হিসেবে ব্যবহার করায় তা দ্রুত ভেঙ্গে যাচ্ছে ঘেরের মধ্যে। এতে জরাজীর্ণ হয়ে পড়া বেড়িবাঁধ সামান্য জলোচ্ছ্বাসের চাপে বিলীন হয়ে প্লাবিত হচ্ছে গ্রামের পর গ্রাম। ফলে গ্রামীণ রাস্তাঘাট ও নদীর বেড়িবাঁধ নির্মাণে সরকারের ব্যয় করা হাজারো কোটি টাকা চলে যাচ্ছে পানিতে। একই সঙ্গে পরিবেশের বিপর্যয় ঘটছে। লবণাক্ত পানি চুইয়ে আসায় ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে কৃষি, প্রাণবৈচিত্র্য। এ কারণে তৃণমূলের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন টেকসইকরণে ঘেরে আউট ড্রেন নির্মাণের বিকল্প নেই বলে একটি বেসরকারী সংস্থার গবেষণা রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে। রিপোর্টে ঘেরের সঙ্গে আউট ড্রেন নির্মাণ বাধ্যতামূলক করার সুপারিশ করা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার সকালে সাতক্ষীরা পাবলিক লাইব্রেরি মিলনায়তনে উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠান বারসিক ও সাতক্ষীরা জেলা নাগরিক কমিটি আয়োজিত এক সংলাপে এই গবেষণার ফল উপস্থাপন করা হয়। সাতক্ষীরা জেলা নাগরিক কমিটির আহবায়ক আনিসুর রহিমের সভাপতিত্বে গবেষণা প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ফ্রিল্যান্স গবেষক তানজির কচি। সংলাপে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরা জেলা পরিষদের প্রশাসক ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসেবে সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান বাবু, শিক্ষাবিদ প্রফেসর আব্দুল হামিদ, অধ্যক্ষ আশেক-ই-এলাহী, জাসদ নেতা ওবায়দুস সুলতান বাবলু, সিপিবি নেতা আবুল হোসেন, নাগরিক নেতা শেখ আজাদ হোসেন বেলাল, এম ইদ্রিস আলী, উদীচীর সিদ্দিকুর রহমান, বারসিকের আঞ্চলিক সমন্বয়কারী পার্থ সারথী পাল প্রমুখ।
গবেষণায় বলা হয়, উপকূলীয় এলাকায় ঘেরে বাণিজ্যিক ভিত্তিতে চিংড়ি চাষ শুরুর পর থেকে নদীর লবণ পানি উত্তোলনের জন্য প্রাথমিকভাবে আউট ড্রেন করা হলেও ঘেরের সংখ্যা বেশি ও আয়তনে দিন দিন ছোট হওয়ার কারণে এখন আর আউট ড্রেন তৈরি করা হয় না। সাতক্ষীরার শ্যামনগর ও আশাশুনি উপজেলার মতো অন্যান্য উপজেলায়ও আউট ড্রেন না রেখেই ঘেরের আওতা সম্প্রসারিত হয়েছে। এতে গ্রামীণ সড়ক অল্পদিনেই ধসে ঘেরের মধ্যে পড়ছে। আরও ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়ছে নদীর বেড়িবাঁধ। পানি নিষ্কাশনের পথ না থাকায় জলাবদ্ধ হয়ে পড়ছে গ্রামের পর গ্রাম। জলাবদ্ধতার কারণে কৃষি জমিতে ফসল উৎপাদন করা যাচ্ছে না। অনেকক্ষেত্রে মানুষের কাঁচা বাড়িঘর ধসে পড়ছে। গবেষণায় সর্বত্র ঘেরে আউট ড্রেন বাস্তবায়নে স্থানীয় সরকার বিভাগ, পানি উন্নয়ন বোর্ড, মৎস্য অধিদফতর ও কৃষি অধিদফতরের সমন্বয়ে সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহণ সম্পর্কিত নীতিমালা প্রণয়ন ও বাস্তবায়নের সুপারিশ করা হয়েছে।

The Daily Janakantha website developed by BIKIRAN.COM

Source: জনকন্ঠ

সম্পর্কিত সংবাদ
বাঁধভাঙ্গা উচ্ছ্বাস ॥ স্বপ্নের পদ্মা সেতু পাড়ি দিতে ঢল

বাঁধভাঙ্গা উচ্ছ্বাস ॥ স্বপ্নের পদ্মা সেতু পাড়ি দিতে ঢল প্রথম পাতা 26 Jun 2022 26 Jun 2022 Daily Janakantha জনকণ্ঠ Read more

২৪ ঘণ্টার মধ্যে কোরবানির পশুর বর্জ্য অপসারণের নির্দেশ 

আসন্ন ঈদুল আজহায় কোরবানির পশুর বর্জ্য ২৪ ঘণ্টার মধ্যে অপসারণ এবং কোরবানির স্থান পরিষ্কার করার জন্য সকল সিটি কর্পোরেশন এবং Read more

নাচ-গানের যুগলবন্দীতে গীতিআলেখ্য উৎসব

নাচ-গানের যুগলবন্দীতে গীতিআলেখ্য উৎসব শেষের পাতা 26 Jun 2022 26 Jun 2022 Daily Janakantha সংস্কৃতি প্রতিবেদক ॥ বিকেলটা ছিল এক Read more

ম্যামথ শাবকের মমির সন্ধান

ম্যামথ শাবকের মমির সন্ধান প্রথম পাতা 26 Jun 2022 26 Jun 2022 Daily Janakantha কানাডার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে বরফযুগের একটি লোমশ ম্যামথ Read more

দেশে প্রথম ইটিএফ হচ্ছে ডন গ্লোবালের সহযোগিতায়

বাংলাদেশে প্রথম এক্সচেঞ্জ ট্রেডেড ফান্ড (ইটিএফ) চালু করতে কারিগরি সহযোগিতা করবে যুক্তরাজ্যভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ডন গ্লোবাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড।

মাওয়া প্রান্তে বাইকে প্রথম পার হলেন যিনি-

মাওয়া প্রান্তে বাইকে প্রথম পার হলেন যিনি- প্রথম পাতা 26 Jun 2022 26 Jun 2022 Daily Janakantha স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ Read more

আমরা নিরপেক্ষ নই ,    জনতার পক্ষে - অন্যায়ের বিপক্ষে ।    গণমাধ্যমের এ সংগ্রামে -    প্রকাশ্যে বলি ও লিখি ।   

NewsClub.in আমাদের ভারতীয় সহযোগী মাধ্যমটি দেখুন